আমি এস এম কামাল বলছি !

         মনিরামপুর প্রতিনিধির সহায়তায় আবুল হোসেন সানার সাক্ষাৎকার গ্রহন করেছেন  আমাদের বিশেষ পলিটিক্যাল বিট প্রতিবেদক
নাঈম সাব্বির: যশোর জেলার-মনিরামপুর থানার মশ্মিমনগর ইউনিয়নের অজো পাড়া গাঁয়ের হাজরা কাঁঠি গ্রামের কৃষক পরিবারের ছেলে আবুল হোসেন সানা। আওয়ামীলীগ ভক্ত সানা  কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী সদস্য  এস এম কামাল হোসেনের ফেসবুক পেজে একটি ম্যাসেজ দেন,
প্রিয় কামাল ভাই আপনাকে আমি খুব ভালোবাসি। সময় রাত ১০.৩০ মিনিট তখন।আবুল হোসেন সানার মোবাইলে রাত ১১.৩০ মিনিটে রাতের নিরবতা ভেংগে রিং বেজে ওঠে স্বাভাবিক ভাবে সানা ফোন কলটি রিসিভ করে বলে হ্যালো ও প্রান্ত থেকে অবাক করা জবাব আসে, আমি এস এম কামাল বলছি, কেমন আছো সানা তোমার বাসা কোথায়?কি কাজ করো?তোমার আব্বা আম্মাকে আমার সালাম দিও।সানা এতোটাই চমকে ওঠে যে এস এম কামাল হোসেনের মত নেতা আমাকে ফোন দিল আমি স্বপ্ন দেখছি নাতো।যেখানে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে ফোন দিলে ফোন ধরেনা সেখানে কামাল হোসেনের মত বড় নেতার সাথে কথা বলছে সে ভাবতেই কন্ঠ বন্ধ হয়ে আসছে সানার।এস এম কামাল হোসেন সানার নিরবতা ভেংগে বলেন তোমাদের মত তৃণ মূলের কর্মীরা আওয়ামীলীগের প্রান-তোমাদের মত কর্মীদের ফোন যারা অগ্রাহ্য করে তারা নেতা নয়।সানাকে এস এম কামাল হোসেন আরও বললেন দলটা ভালো ভাবে করো দলের অসহায় কর্মীদের ভালোবাসবে আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবে এবং মাঝে মাঝে ফোন দিবো,  ঢাকায় আসলে দেখা করবে কোন সমস্যায় পড়লে ফোন দিবে।এস এম কামাল হোসেনের কথা শেষ হতেই সানা ভাবেছে। জেলার নেতাতো অনেক বড় ব্যাপার থানার কোন নেতাকে ফোন দিলে ধরেন না।যদিও ফোন ধরেন একটু সমস্যার কথা বললেয় রুক্ষ ব্যবহার করে ফোনের লাইন কেটে দেন।অথচ এস এম কামাল হোসেনের মত নেতা সমস্যায় পড়লে ফোন দিতে বললেন।আওয়ামীলেগের প্রান যেমন তৃণ মূলের কর্মীরা তেমনটি তৃণ মূলের কর্মীদের ভালবাসার স্থানটি দখলে রেখেছেন এস এম কামাল হোসেনের মত নেতা।আবুল হোসেন সানা নতুন উদ্দিপনায় আওয়ামীলীগের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য কাজ করে চলেছেন।আবুল হোসেন সানার শেষ কথা”স্যালুট””স্যালুট”” কামাল স্যার।