আজ - মঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি, (শীতকাল), সময় - রাত ৩:৩৮

আরবপুরে শহীদের নির্দেশে পিচ্চি বাবুর বোমা হামলা- বলির পাঠা রাসেল – জনি!

যশোর সদর উপজেলার অরবপুর ইউনিয়নে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১২ টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় কেউ হতাহত না হলেও ‍বালিয়া ভেকুটিয়ার ছাত্রলীগ কর্মী তাওহিদ আজিজ জনি দাবি করেছেন পূর্ব শত্রুতার জেরে শ্মশান পাড়ার বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সাধারন সম্পাদক সাব্বির আহমেদ রাসেল  তাঁকে হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা চালিয়েছে।খবর পেয়ে আরবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম কোতয়ালি মডেল থানার ওসি (অপারেশন) শামসুদ্দোহা ও এস আই শহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকশ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস প্রদান করেন।


সাব্বির আহমেদ রাসেল ও
তাওহিদ আজিজ জনি

যোগাযোগ করা হলে ছাত্রলীগ কর্মী তাওহিদ আজিজ জনি জানান, মোবাইল ফোন কেনাবেচার সূত্র ধরে আমাদের পাশের বাড়ীর ভাড়াটিয়া প্রিন্সের সাথে  সাব্বির আহমেদ রাসেলের টাকা পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত একটি ঝামেলা ছিলো। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাব্বির আহমেদ রাসেল ও তাঁর সঙ্গীয় একটি দল প্রিন্সকে তুলে নিয়ে যেতে আসলে প্রতিবেশি হিসেবে আমি ও এলাকা বাসী বাধা প্রদান করি। এ সময় রাসেল আমাকে সরাসরি হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়।পরে রাত সাড়ে ১২ টার দিকে একদল সন্ত্রাসী আমার বাসার সামনে একের পর এক বোমার বিষ্ফোরন ঘটায়। সে সময় মটর সাইকেল যোগে আসা সন্ত্রাসীদের মধ্যে আমি শুধু রাসেল কে চিনতে পেরেছিলাম।

অপরদিকে, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সাধারন সম্পাদক সাব্বির আহমেদ রাসেলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি হামলার দ্বায় অস্বিকার করে বলেন , বিষ্ফোরনের শব্দ আমিও শুণেছি সে সময় আমি আমার বাসার সামনে এলাকার মুরুব্বিদের সাথে বসে ছিলাম। বোমার শব্দ শুণে মুরুব্বিরা বালিয়া ভেকুটিয়ার মুরুব্বিদের কাছে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে জানতে পারেন উত্তর পাড়ায় কে বা কারা বোমা হামলা চালিয়েছে।তারপর আমি আমার বাবা ও এলাকার মুরুব্বিরা উত্তরপাড়া পৌঁছায়, সেখানে আরবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম কোতয়ালি মডেল থানার ওসি (অপারেশন) শামসুদ্দোহা উপস্থিত ছিলেন।

বালিয়া ভেকুটিয়া উত্তরপাড়ার স্থানীয়রা জানান, হামলায় অংশ নেয়া সন্ত্রাসীদের মধ্যে আমরা সাব্বির আহমেদ রাসেল কে দেখিনি।সে সময় সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্ববায়ক শাহিদুজ্জামান শহীদের পোষ্য সন্ত্রাসী হুসাইন মাহবুব ওরফে পিচ্চি বাবুকে একটি লাল মটর সাইকেল যোগে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে দেখেছি।আমরা ধারনা করছি রাসেল ও জনির বাকবিতন্ডার সুযোগ নিয়ে তৃতীয়পক্ষ হামলা চালিয়েছে।

ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে খানজাহান আলী 24/7 নিউজ টিম ছদ্মবেশে বালিয়া ভেকুটিয়ার শহীদ মোড়ে অবস্থান নিয়ে কৌশলে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানতে পারে বিষ্ফোরনের কিছুক্ষণ আগে একটি লাল মটর সাইকেল যোগে শহীদের বাড়ি থেকে ব্যাগ কাঁধে সন্ত্রাসী হুসাইন মাহবুব ওরফে পিচ্ছি বাবু কে বেরিয়ে যেতে দেখেছেন তাঁরা। তার কিছুক্ষণ পরেই উত্তর পাড়ার দিক থেকে বিষ্ফোরনের শব্দ শুণতে পান।

খানজাহান আলী 24/7 নিউজ/ মুনতাসির মামুন।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত