ক্ষমা চেয়েছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টার|| ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন প্রধান শিক্ষক নাজনীন ফেরদৌস।আজ মঙ্গলবার স্কুলে তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাত জোর করে ক্ষমা চান।এসময় নাজনীন ফেরদৌস বলেন, যে ঘটনা ঘটেছে তা অনাকাক্ষিত। ঘটনাটি যে এতদূর গড়াবে তা অনুধাবন করতে পারিনি। এরই মধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা মন্ত্রণালয় নির্ধারণ করে দেবে। আত্মহত্যার ঘটনায় আমি সবার কাছে ক্ষমা চাচ্ছি।এর আগে সকালে স্কুল পরিদর্শনে গিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলেন  শিক্ষামন্ত্রী। প্রায় এক ঘণ্টা সেখানে অবস্থান করেন তিনি। পরে  তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।আগামী তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর স্কুল কর্তৃপক্ষের কোনো ত্রুটি পেলে,স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এদিকে ছাত্রী আত্মহত্যার ঘটনার বিচারের দাবিতে স্কুলের সামনে বিক্ষোভ করেছেন অভিভাবকরা। এসময় স্কুলের সামনে অবস্থান নিয়ে পরীক্ষা বর্জন করেছে ওই ছাত্রীর সহপাঠীরাও।একইসঙ্গে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌসকে অভিযুক্ত করে তার পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকরাও।