খুলনা সিটি নির্বাচনে জিততে আওয়ামী লীগের প্রধান হাতিয়ার ‘উন্নয়ন’

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী তালুকদার অাব্দুল খালেককে জেতাতে খুলনায় শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরবে আওয়ামী লীগ। বুধবার নৌকা প্রতীকের পক্ষে পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় তালুকদার আব্দুল খালেকের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ও কেন্দ্রীয় নেতা এসএম কামাল হোসেন নেতাকর্মীদেরকে ভোটারদের ঘরে ঘরে গিয়ে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ন, সমৃদ্ধি ও জনগণের সরকার। বর্তমান সরকারের শাসনামলে জনগণ ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত স্বনির্ভর জাতি হিসেবে বহির্বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে। সব কিছুই সম্ভব হয়েছে শেখ হাসিনার কল্যাণে। ‘তাই আগামী কেসিসি নির্বাচনে উন্নয়ন সমৃদ্ধি ও শান্তির প্রতীক বঙ্গবন্ধুর নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। সকল ষড়যন্ত্রকে রুখে দিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার জন্য সকলে সোচ্চার থাকতে হবে।’ কামাল হোসেন আরো বলেন, তালুকদার আব্দুল খালেক ২০০৮ সালে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে কেসিসিকে একটি পরিকল্পিত আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়েছেন। বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক পরাজিত হন। যার ফলাফল হিসেবে বর্তমান বিএনপির মেয়রের আমলে নগরবাসী নাগরিক সেবা থেকে কী পরিমাণে বঞ্চিত হচ্ছেন তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন। তিনি বলেন, বর্তমান মেয়রের সময়ে সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ড মুখ থুবড়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট, ড্রেন সব ব্যবহারের অনুপযোগী। জলাবদ্ধতা ও মশার উপদ্রবে নগরবাসী অতিষ্ঠ। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে যোগ্যপ্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেককে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী করতে হবে। নির্বাচনে বিজয়ী হলে নগরবাসী যানজটমুক্ত-জলাবদ্ধতামুক্ত একটি আধুনিক ও পরিকল্পিত নগরী গড়ার কারিগর পাবেন উল্লেখ করে এ নেতা বলেন, খুলনা হবে সুপরিকল্পিত বাসযোগ্য আধুনিক নগরী। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়দেব নন্দী, মো: শাহজাদা, মুক্তিযোদ্ধা মুন্সি আইয়ুব আলী, কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু, অসিত বরন বিশ্বাস, সৌমেন বোস, মো: তাজুল ইসলাম এবং সাবেক ছাত্রনেতা সাঈয়েদুজ্জামান।