দয়া করে এক কপি “কালেরকণ্ঠ” কিনুন- পাঠকের বড় আকাল যাচ্ছে ওদের!

পাঠকের কলাম ঃ হলুদ সাংবাদিকতা, ভিত্তিহীন সংবাদ এসব সংজ্ঞা অনলাইন সংবাদ মাধ্যম গুলোকে হরহামেশাই দেয়া হয়। তার যুক্তিসঙ্গত কারনও আছে, পত্রিকার পরিচিত বাড়ানোর জন্য অনলাইন মিডিয়া গুলো এসকল কর্মকাণ্ড করে কিন্তু প্রিন্ট মিডিয়া! ওরা তো বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করে। পণ্য যখন গোদামজাত হয়ে যায় কেউ পণ্য কিনতে চাইনা তখন পণ্যের মোড়কে মুখরোচক বিজ্ঞাপন সাটানো হয় যাতে করে ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষন করতে সক্ষম হয়।
তেমনই নাজেহাল অবস্থা জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠের। পাঠকের অভাবে ভূয়া মুখরোচক সংবাদ প্রকাশ করে পাঠকের দৃষ্টি আকর্ষন করার পরিকল্পনা করেছে কালেরকণ্ঠ। সামনেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে রাজধানী সহ প্রত্যেকটি জেলা শহর ও আসনগুলোতে। কে হবেন সাংসদ।
এই উত্তেজনা কে পুঁজি করে কালেরকণ্ঠ গতকাল ৬৭ জন প্রার্থী কে এমপি মনোনয়ন দিয়েই দিয়েছে। অন্তত ৬৭ কপি পত্রিকাতো বিক্রি হবে। যে সকল এমপির নাম প্রকাশ করে কালের কণ্ঠ গতকাল সংবাদ প্রকাশ করেছে তাদের অধিকাংশের সাক্ষাৎকার ও প্রকাশ করেছে। উল্লেখ্য যাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে তারা সকলেই চলমান সংসদের সংসদ সদস্য।
এদিকে, থেমে নেই প্রথমআলো গেল ৫ এপ্রিলে যশোর জেলা আ’লীগ সম্পাদক ও যশোর – ৩ আসনে নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহিন চাকলাদার কে গডফাদার বানিয়ে তার ছবি ব্যঙ্গকরে ছাঁপিয়ে তার শৈশব কাল থেকে সেদিন পর্যন্ত টেনে এনে সংবাদের শিরোনাম করলেন “যশোরে চাকলাদাররাই সব” সে দিনের প্রথম আলোর আংশিক (যশোরের চিত্রা মোড়ে দাঁড়িয়ে আছে ১৭ তলা একটি নতুন ভবন। চকচক করছে এর গ্লাস আর অ্যালুমিনিয়ামের পাতের বহিরাবরণ। শহরের যেকোনো প্রান্ত থেকেই নজরকাড়া এই ভবনের মালিক যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবদুস শাহীন চাকলাদার। ক্ষমতার জোরে তিনি এক স্কুলশিক্ষিকার এই জমি কবজা করেছেন। শহরের সবচেয়ে উঁচু এই ভবন জানান দিচ্ছে যশোরের অলিখিত এক অধিপতির কথা, মাত্র দেড় দশকের ব্যবধানে যিনি হয়ে উঠেছেন পুরো যশোরের নিয়ন্ত্রক ) অথচ সেই গডফাদারের নব নির্মিত পাঁচ তারকা হোটেলে সংবাদ সংগ্রহের সুবাদে সুইমিং পুলে অবসর কাটাতে গেলেন প্রথম আলোর যশোর প্রতিনিধি। শিরোনামও করলেন “যশোরে পাঁচ তারকা হোটেলের যাত্রা শুরু” কিন্তু তখন তারা আর লিখলেন না, যে স্থানে হোটেল টি নির্মান করা হয়েছে সে স্থানটি কিন্তু জোর করে দখল করা। যা তারা ইতি পূর্বে লিখেছেন। 
প্রথম আলোও যদি প্রচার স্বার্থে ব্যক্তি বা প্রতিষ্টানকে হেও প্রতিপন্ন করে সংবাদ প্রকাশ করে তবে তা কেন হলুদ সাংবাদিকতা হবেনা! এমন প্রশ্ন অনলাইন গণমাধ্যম কর্মীদের।
উল্লেখ্য এখনো পর্যন্ত আ’লীগের পক্ষ থেকে কাউকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে কিনা বা কবে দেয়া হবে সে সংক্রান্ত কোন তথ্য দিতে পারেনি আ’লীগের দপ্তর উপ-কমিটি।