নরেন্দ্রপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসেনকে হত্যা চেষ্টায় টিউবওয়েলে বিষ মিশিয়েছে দুর্বৃত্তরা

খানজাহান আলী 24/7 নিউজ: যশোর সদর উপজেলাধীন ১৪ নং নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্যের বাসাবাড়ির টিউবয়েলে বিষ মিশিয়েছে দুবৃত্তরা। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সাবেক যুবলীগ নেতা জাকির হোসেনকে হত্যার উদ্দেশ্যেই বিষ মেশানো হয়েছে বলে দাবি করছেন এলাকাবাসী।

ঘটনাটি ঘটেছে বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতা ইউপি সদস্য জাকির হোসেনের জাকির হোসেনের নিজ বাসাবাড়ি নরেন্দ্রপুর এ।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলে এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ০৬ জানুয়ারি বুধবার আনুমানিক রাত ৮.৩০ মিনিটে খাবার পানি আনতে টিউবওয়েলে যান জাকির হোসেনের স্ত্রী। কয়েকটা চাপ দেওয়ার পর টিউবওয়েল থেকে ফেনা বের হতে দেখে বাড়িতে থাকা অন্যান্য সদস্যদের কে ডাক দেন তিনি। পানিতে ফেনা দেখে সকলে ভয় পেয়ে যায় পরে উৎসুক এলাকাবাসী অনেকেই দাবী করছেন যে কে বা কারা টিউবওয়েলে বিষাক্ত কিছু মিশিয়েছে।

সংগ্রহে রাখা টিউবওয়েলের পানি

বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে এলাকার কয়েকজন ব্যক্তিবর্গের পরামর্শে ফেনা ওঠা পানি সংরক্ষন করে রাখেন পরিবারের সদস্যরা।

এ বিষয়ে জাকির হোসেন বলেন, আমাদের বাড়িতে মোট ০৫ (পাঁচ) সদস্য সহ আশেপাশের প্রায় ০৫/০৭ টি বাড়ির সদস্যরা আমাদের এই টিউবওয়েলের পানি খাবার পানি হিসেবে ব্যবহার করে। ইতিমধ্যে বিষয়টি আমি আমার অভিভাবক মহলের সকল নেতৃবৃন্দ সহ প্রশাসনকে জানিয়েছি। প্রশাসন বিষয়টি আমলে নিয়ে তদন্ত করবেন বলে আমাকে আস্বস্ত করেছেন।

সংগ্রহে রাখা হয়েছে ফেনাযুক্ত সেই পানি

উল্লেখ্য জাকির হোসেন নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের মৃত আব্দুল আজিজের বড় ছেলে। জাকির হোসেন যশোর সদর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ছিলেন। তিনি একটানা তৃতীয় বারের মতো নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের ০৩ নং ওয়ার্ড এর ইউপি সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ পরিবারের একটি পরিচিত নাম জাকির হোসেন নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী।

গত বুধবার থেকে ঘটনাটি এ অঞ্চলে টক অফ দা টাউন এ পরিণত হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিষয়টির ইতি হোক এমনটি প্রত্যাশা করেন এলাকাবাসী।