নির্বাচনে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

ডেস্ক রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার দেশের প্রতিটি জেলায় এ সংক্রান্ত প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী ২ জানুয়ারি পর্যন্ত মাঠে থাকার কথা রয়েছে তাদের।

বিজিবি মোতায়েন প্রসঙ্গে আজ মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গণমাধ্যমেই খবর আসছে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। তা ছাড়া আগামী ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে ২০ দল ও ঐক্যফ্রন্ট এখনই সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে। সেনা মোতায়েন সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। সে কারণে কমিশন আগাম বিজিবি মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিজিবি সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মহসিন রেজা প্রথম আলোকে বলেন, দেশের ৬৪টি জেলাতেই বিজিবি সদস্যরা নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করবে। কবে নাগাদ বিজিবি দায়িত্ব পালন করতে শুরু করবে কিংবা কত দিন মাঠে থাকবে সে সিদ্ধান্তও নির্বাচন কমিশন দেবেন। ১ হাজার ১৬ প্লাটুনে মোট কতজন থাকছেন সে সম্পর্ক তিনি তাৎক্ষণিকভাবে তথ্য দিতে পারেননি মহসিন। জানা গেছে, প্রতি প্লাটুনে সদস্যসংখ্যা ৩০ জন করে। সেই হিসেবে মাঠে থাকবেন প্রায় ৩০ হাজার বিজিবি সদস্য।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদকে উদ্ধৃত করে বলেছে, বিজিবি মঙ্গলবার থেকে মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাচনে সহিংসতা ও বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে তারা কাজ করবে।

এদিকে গত ১৫ ডিসেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বলেন, জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে সেনাবাহিনী ২৪ ডিসেম্বর থেকে মাঠে থাকবে। নির্বাচনের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় সেনাবাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে এবং জরুরি প্রয়োজনে ম্যাজিস্ট্রেটের সহায়তায় তারা গ্রেপ্তার করতে পারবে।