আজ - বৃহস্পতিবার, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, (বর্ষাকাল), সময় - রাত ১২:১২

পাবনায় স্কুলছাত্রী ও বিউটি পার্লারের কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ অন্যদিকে দুই গণস্বাস্থ্য কর্মীকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা

পাবনা প্রতিনিধি , পাবনায় এক স্কুলছাত্রী ও এক বিউটি পার্লারের কর্মিকে ধর্ষণের অভিযোগে পাবনা ও বেড়া থানায় পৃথক মামলা হয়েছে। এ ছাড়া সাঁিথয়ায় দুই গণস্বাস্থ্য কর্মীকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানায়, পাবনা শহরের অর্পনা বিউটি পার্লারের এক কর্মী (১৬) সোমবার রাত ৮টার দিকে কাজ শেষে বাড়ী ফিরছিল। এ সময় পাবনা শহরের দোহাপাড়ায় ৪/৫ বখাটে তাকে পারশবরতী নির্জন স্থানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ঐ কিশোরী বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে পাবনা সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। পাবনা সদর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এজাহারের ভিত্তিতে আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে পাবনার বেড়া উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে জোড় করে মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়ার পর ধর্ষণ করেছে কাওসার আহমেদ (১৮) নামের এক বখাটে। ছাত্রীটির বাড়ি বেড়া পৌর এলাকার সানিলা মহল্লায় এবং সে স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেন এন্ড হাইস্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী। সোমবার (২১ আগস্ট) ক্লাসে অসুস্থ হয়ে পড়া এক বান্ধবীকে বাড়ি পৌঁছে দিয়ে স্কুলে ফেরার পথে দুপুর দেড়টার দিকে তাকে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী সোমবার (২১ আগস্ট) রাত সাড়ে নয়টায় কাওসারসহ অজ্ঞাত তিন থেকে চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছে।

পুলিশ মামলাটি গ্রহণ করে সোমবার রাত থেকেই আসামিদের ধরার জন্য অভিযানে নামে। এদিকে মঙ্গলবার ছাত্রীটির ডাক্তারি পরীক্ষার সম্পন্ন হয়। এ সময় তার সঙ্গে কয়েকজন স্বজন ছাড়াও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বেড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুব্রত কুমার বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিয়া মোহাম্মদ আশিষ বিন্ হাছান বলেন, ‘আসামি ও তার সহযোগীদের ধরার জন্য সোমবার রাত থেকেই আমরা অভিযান শুরু করেছি। আশা করছি শিগগিরই আমরা তাদের ধরে ফেলবো।’
এদিকে পাবনার সাঁথিয়ায় দুই গণস্বাস্থ্য কর্মীকে শ্লীলতাহাণীর চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে।

সাঁথিয়া থানা দায়েরকৃত মামলার এজহার সুত্রে জানা যায়,কাশিনাথপুর টাংবাড়ি অবস্থিত গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী আজমিরা জাহান শোভা (১৯) ও কল্পনা আক্তার (১৯) গত রোববার প্রতিদিনের কর্মসুচীর অংশ হিসাবে সাঁথিয়া উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর সরকারী প্রাধমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকমন্ডলীদের সাথে ব্লাড ক্যাম্পিং এবং রায়াকমারী গ্রামের ইউপি সদস্য দুলালের সহিত স্বাস্থ্য ক্যাম্প বিষয়ে আলোচনা শেষ করে ভ্যান যোগে অফিসের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। বিষ্ণুপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিকট পৌছালে ২টি হোন্ডা যোগে ৪ জন লম্পট ভ্যানের গতিরোধ করে। তারা টেনে হেঁচড়ে ভ্যান থেকে নামিয়ে প্রকাশ্যে তাদের শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। এ সময় তাদের চিৎকারে বিষ্ণপুর স্কুলের শিক্ষকবৃন্দ এসে স্বাস্থ্য কর্মীদ্বয়কে উদ্ধার করে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে বসিয়ে রাখে। খবর পেয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রজেক্ট ম্যানেজার রানী চক্রবর্তী স্বাস্থ্য কর্মী দুজনকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় বুধবার রানী চক্রবর্তী বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামী করে সাঁথিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে। যার নং ২২ তাং ২৩/৮/২০১৭ইং। আসামীরা হলো, বিশ্রষ্ণু গ্রামের আঃ রশিদের ছেলে রাশেদুল (২৩) আনোয়ারের ছেলে রফিকুল ( ২১) মকবুলের ছেলে মোশারফ ( ২২),ফজলে খানের ছেলে রাসেল ( ২১)। এ বিষয়ে সাঁথিয়া থানার অফিসার্স ইনচাজ হাসান ইনাম জানান, আসামীদের ধরার প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।এর আগে গত ১ আগষ্ট বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ৬ বখাটে সুজানগরে দুই স্কুল ছাত্রীকে গণ ধর্ষণ করে এবং মোবাইলে তার ভিডিও চিত্র ধারন করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত