আজ - শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি, (বসন্তকাল), সময় - বিকাল ৩:২৩

পুলিশে চাকরি দেওয়ার নাম করে ১২ লক্ষ্য টাকা গ্রহন,ফেরত দিতে টালবাহানা

 ১২ লাখ টাকা নিয়ে চাকরি দিতে না পারায় চেকের মাধ্যমে টাকা ফেরত দেয়ার নামে প্রতারণা করেছেন আব্দুস সামাদ ওরফে সামাদ মিস্ত্রি নামে এক ব্যক্তি। ওই চেক ব্যাংকে ডিজঅনার হওয়ায় যশোর আদালতে তার নামে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার মণিরামপুরের মোবারকপুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে আলামিন হোসেন এ মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান আহম্মেদ অভিযোগটি আমলে নিয়ে আসামির প্রতি সমন জারির আদেশ দিয়েছেন। আসামি আব্দুস সামাদ খুলনার ডুমুরিয়ার রুস্তমপুর গ্রামের মৃত আব্দুল সালাম ওরফে মালেকের ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, আলামিন হোসেন বিএ অনার্সের ছাত্র। বেকারত্ব দুর করার জন্য তিনি পুলিশের কনস্টেবল পদে আবেদন করেছিলেন। এ সংবাদ জানতে পেয়ে তার পরিচিত একজন চাকরি পাইয়ে দেয়ার জন্য আব্দুস সামাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন। আব্দুস সামাদ তাকে পুলিশে চাকরি পাইয়ে দিতে ১২ লাখ টাকার চুক্তি করেছিলেন। আব্দুস সামাদ আলামিনকে চাকরি দিতে ব্যর্থ হওয়ায় চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি ১২ লাখ টাকার চেক দেন। এ দিন নগদায়নের জন্য ব্যাংকে জমা দিলে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় চেকটি ডিজঅনার হয়। ৩০ জানুয়ারি লিগ্যাল নোটিশের মাধ্যমে আব্দুস সামাদকে অবহিত করা হয়। লিগ্যাল নোটিশ গ্রহণ করে যথাসময়ে টাকা পরিশোধ না করায় তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত