আজ - বুধবার, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, (বর্ষাকাল), সময় - রাত ১০:৫৯

পুলিশ সহ গ্রেপ্তার তিন- খুলনায় হত্যাকান্ড

খুলনা অফিস : নগরীর দৌলতপুরে ছাত্রদল কর্মী আবদুল্লাহ আল ফয়সাল শিপলু মোল্লা হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে গোলাম মোস্তফা ওরফে বিপ্লব (৪৫) নামে একজন পুলিশ কনস্টেবলসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে দশ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।
এর আগে বুধবার রাতে কনস্টেবল গোলাম মোস্তফা ওরফে বিপ্লব ও তার নয় সহোদরসহ ১৪ জনকে আসামি করে দৌলতপুর থানায় মামলা করেন নিহতের বাবা কামরুজ্জামান বাবু মোল্লা।
খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) মুখপাত্র সিটি স্পেশাল ব্রাঞ্চের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মনিরা সুলতানা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘নিহতের বাবার দায়ের করা মামলায় পুলিশ কনস্টেবল গোলাম মোস্তফাকে এজাহারভুক্ত আসামি করা হয়। সে কেএমপির আড়ংঘাটা ফাঁড়িতে কর্মরত ছিল। তাকে গ্রেফতারের পর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সে দৌলতপুর দেয়ানা এলাকার আমীর আলী শেখের ছেলে। এছাড়া এ মামলায় হাসান ও আরিফসহ তার অপর নয় ভাইও আসামি।’
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দৌলতপুর থানার এসআই মো. মিকাইল হোসেন জানান, শিপলু হত্যা মামলায় পুলিশ কনস্টেবল সহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি দুইজন হলেন, দৌলতপুরের দেয়ানা এলাকার হামিদ শেখের ছেলে শহিদুল শেখ (৫২) ও তার সহোদর এনামুল শেখ (৩০)। গ্রেফতার তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে দশ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।
উল্লেখ্য, ২০ জুন রাত ১০টার দিকে নগরীর দৌলতপুর দেয়ানা এলাকার বাড়ির সামনে দুর্বৃত্তরা ছাত্রদল কর্মী আবদুল্লাহ আল ফয়সাল শিপলু মোল্লাকে কুপিয়ে হত্যা করে। চাঁদাবাজিতে বাধা দেওয়ায় এই খুনের ঘটনা ঘটে বলে নিহতের পরিবার দাবি করছে। শিপলুর চাচা কবির হোসেন কবু মোল্লা খুলনা সিটি করপোরেশনের চার নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত