আজ - মঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি, (শীতকাল), সময় - সকাল ৭:০০

ভাইকে পিটিয়ে বোনকে ধর্ষণের চেষ্টা- পুলিশ চুষছে আঙ্গুল !

জুবায়ের আহমেদ, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে ভাইকে পিটিয়ে আহত করে বোনকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আদিতমারী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।আসামিরা হলেন, সদর উপজেলার কালমাটি আছদ্দির চরের অজিয়ার রহমান (২৪), সুমন মিয়া (১৭) ও আলামিন মিয়া (২১)।জানাগেছে, মঙ্গলবার রাতে আসামিরা গোবর্দ্ধন গ্রামের পাশে তিস্তার চরে পিকনিকের আয়োজন করে। সেখানে তারা তাঁবু টেনে থাকার ব্যবস্থাও করে।গোবর্দ্ধন গ্রামের পোশাক শ্রমিক মুক্তা বেগম (২৮), তার সন্তান ও ছোট ভাই সহ সন্ধ্যায় ওই পিকনিক স্পটের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় পিকনিকের তাঁবুর নিচ থেকে অভিযুক্ত ওই তিন জন বের হয়ে তাদের ওপর হামলা করে মেয়েটিকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় ছোট ভাই বছির উদ্দিন তাদের বাধা দিলে তাকে এলোপাতারি মারপিট করে মাটিতে ফেলে দেয়। পরে তারা মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ব্যর্থ হয়ে আসামিরা মেয়েটির মাথায় আঘাত করে মাটিতে ফেলে দেয়।পাশে আহত ভাইয়ের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে তারা পালিয়ে যায়। পরে লোকজন দুই ভাই-বোনকে উদ্ধার করে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করে।এ ঘটনার বিচার চেয়ে আহত মেয়েটি বাদী হয়ে তিন দুর্বৃত্তের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।ঘটনার দুই দিন পরও থানা পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। অন্যদিকে আসামিরা অভিযোগ তুলে নিতে তাদের হুমকি দিচ্ছে বলে বাদিনী অভিযোগ করেছেন।হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মুক্তা জানান, স্থানীয়রা ছুটে না এলে ঘাতকরা তার সম্ভ্রম নষ্ট করে তাদের মেরে ফেলত। প্রভাবশালী হওয়ায় পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এ ব্যাপারে তিনি নারী আইন সহায়তা সংস্থাগুলোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেশ্বর রায় জানান, মেয়েটিকে দেখেছি। বিষয়টি তদন্তের কথা মনে ছিল না। তবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত