মনিরামপুরের পাগলা শাহিনের লাশ মাগুরায় উদ্ধার।

শালিখা, মাগুরা প্রতিনিধিঃ মনিরামপুর উপজেলার মশ্মিন নগর ইউনিয়নের শাহিন ওরফে পাগলা শাহিনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে শালিখা থানা পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে শালিখা জুট মিলের পেছনে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে শালিখা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন।

পাগলা শাহীন গত দুই বছর ধরে মণিরামপুরের কাশিমনগর ইউনিয়নের নাদড়া গ্রামে তার ভগ্নিপতি আবু তালেবের বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন। গত মঙ্গলবার গভির রাতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে সাদা পোশাকধারী একদল লোক তাকে তুলে নিয়ে যায় বলে এলাকায় প্রচার রয়েছে। এর পর থেকে তার আর খোঁজ পাওয়া যায়নি।
অনেক খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে আজ সকালে তার লাশের সন্ধান পায় শাহিনের পরিবার।

পাগলা শাহিন, যশোর সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত প্রধান আসামি ছিলো।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান, এলাকাবাসীর সংবাদের ভিত্তিতে মাগুরা-যশোর সড়কের শতখালী এ আর জুটমিল এলাকায় রাস্তার পাশ থেকে শালিখা থানা পুলিশ ওই মরদেহ উদ্ধার করেছে। আনুমানিক ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির বাম কানের নিচে গুলির চিহ্ন রয়েছে। গুলিটি তার বাম কানের নিচ দিয়ে ঢুকে মুখ দিয়ে বের হয়ে গেছে। তবে পুলিশ এখনো মরদেহের পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি।

বিএনপি জোট সরকারবিরোধী আন্দোলনে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। আলমগীর হত্যা মামলায় শাহীনকে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি করেছেন সাবেক সাংসদ খালেদুর রহমান টিটোর ছেলে জয়।