যশোরের ঝিকরগাছায় মাকে খুন করে কিশোরের আত্মসমর্পণ

যশোর প্রতিনিধি : যশোরের ঝিকরগাছায় বিমাতা আনোয়ারা বেগমকে (৪৫)  কুপিয়ে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে মিম (১৫) নামে এক কিশোর।  রোববার রাত আটটার দিকে ঝিকরগাছা শহরের কীর্তিপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ছোট ভাইয়ের ওপর নির্যাতন সইতে না পেরে ওই কিশোর এই ঘটনা ঘটায়।
ঝিকরগাছা থানার ওসি আবু সালেহ মাসুদ করিম আত্মসমর্পণকারী মিমের উদ্ধৃতি দিয়ে  জানান, কীর্তিপুর এলাকার মশিয়ার রহমান প্রথম স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার পর আনোয়ারাকে বিয়ে করেন। মিমের আরেকটি ছোটভাই রয়েছে। বিমাতা আনোয়ারা তাকে ঠিকমতো খেতে দিতেন না। প্রায়ই মারধরও করতেন। ছোটভাইয়ের ওপর এই নির্যাতন সইতে না পেরে আজ রাতে সে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে সৎ মা আনোয়ারাকে হত্যা করে। এরপর সে থানায় এসে ঘটনা পুলিশকে জানায়। তিনি বলেন, ঘটনা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে দ্রুত একজন পুলিশ অফিসারের নেতৃত্বে ফোর্স পাঠানো হয়।
ঝিকরগাছা থানার এসআই কামরুজ্জামান  জানান, তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে আনোয়ারাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তার মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চারটি চিহ্ন রয়েছে। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার আনোয়ারাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ঝিকরগাছায় ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার কারণে মরদেহ কাল সোমবার সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে বলে জানান এসআই কামরুজ্জামান।