যশোরে নৌকার পক্ষে শাহারুলের ব্যাপক শো-ডাউন। পাঁচ হাজার মানুষের বহরে প্রকম্পিত যশোর!

মুনতাসির মামুন: যশোর সদর উপজেলা আ’লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক ও ৯ নং আরবপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম শনিবার বিকালে নৌকার মিছিল নিয়ে শহরজুড়ে ব্যাপক শো-ডাউন করেছেন।

এর আগে, সকাল থেকে ইউনিয়নের প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নৌকায় ভোট প্রার্থনা করেন তিনি এসময় ৯ টি উঠোন বৈঠকেও বক্তৃতা করেন শাহারুল ইসলাম।

নারীদের একাংশ

বিকাল ৪ টার দিকে প্রায় পাঁচ হাজার নারী পুরুষের বহর নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়েন তিনি। শাহারুল ইসলামের নেতৃত্বে নৌকার পক্ষের মিছিলে আরো যোগদেন দুই শতাধিক সমর্থক। মুহুর্তেই ভারী হয়ে ওঠে নৌকার মিছিলের এই বহর।
হাজার হাজার জনতার হাতে নৌকা ঢাক ঢোল নাবিল আহম্মেদের ছবি সস্বলিত ব্যানার মিছিলে শোভা পাচ্ছিলো। মিছিলে নারীদের ব্যাপক উপস্থিতি প্রশংসার জন্ম দিয়েছে।
এছাড়া মিছিলটি শহর প্রদক্ষিনের সময় রাস্তার দুই পাশের সাধারন জনতা প্রশংসা করে বলেন শাহারুল যে মানুষের সাথে থাকেন তার প্রমাণ এই মিছিলের হাজার হাজার জনতা। গাড়িখানা রোড দিয়ে মিছিল প্রদক্ষিণের সময়ে স্থানীয় দোকানদাররা করতালি দিয়ে উৎসাহ যোগান। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা কৃষকলীগের সহ সভাপতি আব্দুল মতলেব বাবু, আরবপুর যুবলীগের সভাপতি আলমাস আলী, যুবলীগ নেতা রানা সর্দার, ছাত্রলীগ নেতা আক্তার, শওকত মেম্বার, যুবলীগ নেতা আমিরুল, ইউপি আওয়ামীলীগ নেতা নূর ইসলাম, মহিলা মেম্বার চায়না, সাহিদা বেগম, আশরাফ মেম্বার, মতিয়ার মেম্বার, উজ্জল মেম্বার, আলতাফ মেম্বার সহ বিভিন্ন আ’লীগের ইউনিটের নেতাকর্মীবৃন্দ। মিছিলটি ধর্মতলা মোড় থেকে শুরু হয়ে মিশনপাড়া, এসপি অফিস, দড়াটানা, থানার মোড় চৌরাস্তা, মাইকপট্টি, পুণরায় দড়াটানা হয়ে ঈদগাহ মোড় পৌরসভা প্রদক্ষিণ করে ধর্মতলা মোড়ে সংক্ষিপ্ত পথসভার মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

মিছিলের একাংশ

এ সময় শাহারুল ইসলাম তাঁর বক্তৃতায় বলেন, মনের ক্ষোভ দুঃখ ব্যথা বেদনা যার যা আছে সবকিছু ঝেড়ে ফেলে মন থেকে ৩০ তারিখ কাজী নাবিল আহম্মেদের নৌকা বিজয়ী করতে হবে মনে রাখবেন কাজী নাবিল আহম্মেদের নৌকা জিতলে শেখ হাসিনা আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন। এ সময় বিএনপি শাসনামলের নানা দূর্নিতি নিয়ে সমালোচনা করে আ’লীগের উন্নয়ন ও নির্বাচনী ইস্তেহারে বর্নিত আশ্বাস বাস্তবায়ন ও পরিকল্পনা বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা করেন তিনি।