আজ - শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি, (হেমন্তকাল), সময় - সকাল ৯:২০

যশোরে বারান্দী পাড়ায়  বিস্ফোরণে কুখ্যাত সন্ত্রাসী জিতু সহ আহত ২।

যশোর শহরের বারান্দী মোল্লাপাড়ায় শুক্রবার রাতে বোমা বানানোর সময় বিস্ফোরণে শীর্ষ সন্ত্রাসী ফিঙে লিটনের ভাগনে সহ দুইজন জখম হয়েছেন। আহতরা হলেন, সন্ত্রাসী ফিঙে লিটনের ভাগনে বারান্দী মোল্লাপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম জিতু (৩০) ও একই এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে শহিদুল ইসলাম (২৮)।

এদের মধ্যে জিতুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তিনি যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত অপরজন শহিদুল প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বারান্দী মোল্লাপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জিতু ও মঞ্জু মিয়ার ছেলে শহিদুল সন্ত্রাসী প্রকৃতির। তারা নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। রাত ৮টার দিকে তারা দুইজন মোল্লাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে বোমা তৈরি করছিলেন। এসময় অসাবধানবশত বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় তারা দুইজন আহত হন। খবর শুনে পরিবারের লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, দুইজনের মধ্যে গুরুতর জিতুকে ভর্তি করে চিকিৎসার জন্য সার্জারী ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে। আর শহিদুল ইসলামকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

অর্থোপেডিক বিভাগের চিকিৎসক বজলুর রশিদ টুলু জানান, বোমার স্পিন্টারে জিতুর বাম হাত ও চোখে মারাত্মক জখম হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক।

আহত জিতুর মা লিপি বেগম সাংবাদিকদের জানান, বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে তার ছেলে জখম হয়েছেন বলে জানতে পেরে হাসপাতালে দেখতে এসেছি।

এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার জানান, বোমা বিস্ফোরণে আহতের বিষয়টি পুলিশ খোঁজখবর নিয়ে দেখছে।

খানজাহান আলী 24/7 নিউজ / শোয়েব হোসেন।

আরো সংবাদ