আজ - মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি, (গ্রীষ্মকাল), সময় - রাত ৩:৫১

যশোর ডিবি পুলিশের অভিযানে ৪ ডাকাত লুন্ঠিত মালামাল সহ আটক।

যশোরের মণিরামপুরের এক বাড়িতে স্বামী-স্ত্রীকে বেধে ঘরের মালামাল লুটের ঘটনার সাথে জড়িত চারজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। তারা সকলেই আন্তজেলা ডাকাত চক্রের সক্রিয় সদস্য।একই সাথে উদ্ধার করা হয়েছে লুট হওয়া সোনার গহনা, টিভি , পানির পাম্প, দুইটি গাভী গরু ও এ কাজে ব্যবহৃত একটি পিকআপ ।

ডিবির এসআই শামীম হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম শনিবার বাগেরহাট ও খুলনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে ও লুট হওয়া মালামাল উদ্ধার করে। আটককৃতরা হলেন, খুলনা জেলার রুপসা উপজেলার নৈহাটি দারোগাভিটা গ্রামের অহিদ শেখের ছেলে আব্দুল হালিম, বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার জাড়িয়া মাইটকুমড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর শেখের ছেলে শিমুল শেখ ওরফে হৃদয়, খুলনার তেরখাদা উপজেলার কুসলা গ্রামের নাসির হাওলাদারের ছেলে মিলন হাওলাদার ওরফে হৃদয় ও রুপসা থানার ইলাহীপুর গ্রামের শওকত আলী শেখের ছেলে আবুল কালাম শেখ।

ডিবির ওসি রুপন কুমার সরকার জানান, গত ২৭ এপ্রিল রাত ১২ টার পর মণিরামপুর উপজেলার বাগডোব গ্রামের আতিয়ার রহমানের বাড়িতে আটক আসামিরা সহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজন আকশ্মিকভাবে বাড়িতে প্রবেশ করে। এরপর ঘরে ঢুকে আতিয়ার ও তার স্ত্রীকে ভয়ভীতি দেখায় একপর্যায় তাদেরকে মারপিট করে মুখ ও হাতপা বেধে ফেলে। এরপর ঘরে থানা বিভিন্ন সোনার গহনা, দুইটি মোবাইল ফোন, টিভি, নগদ টাকা, টর্চলাইট ও গোয়ালঘর থেকে গাভি নিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় আতিয়ার রহমান মণিরামপুর থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্বপায় ডিবির এসআই শামীম হোসেন। তথ্যপ্রযুক্তির সহযোগিতায় আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করে তাদেরকে আটক করে এবং লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করে।

তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শামীম হোসেন জানান, তাদের সাথে জড়িত অন্যদের ধরতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আরো সংবাদ