আজ - মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি, (গ্রীষ্মকাল), সময় - রাত ৩:২৯

যশোর ব্যাটারি চালিত রিকসার বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান।

যশোর শহরে পৌর প্রশাসনের অভিযানে মোটর খুলে রেখে ছেড়ে দেয়া হয়েছে ৮৮টি অটোরিকশা
যশোর শহরে অভিযান চালিয়ে ৮৮টি ইঞ্জিনচালিত অটোরিকশা আটক করা হয়েছে। এরবাইরে ২০টিরও বেশি বাস-ট্রাকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আজ সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে ট্রাফিক পুলিশ ও যশোর পৌরসভা যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করে। পরে মোটর খুলে অটোরিকশাগুলো ছেড়ে দেয়া হয়।

যশোর পৌরসভার সহকারি প্রকৌশলী কামাল হোসেন জানান, শহরের অলিগলিসহ বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে ইঞ্জিনচালিত অটোরিকশা চলাচল করে। যাদের কোনো লাইসেন্স দেয়া হয়নি। অবৈধ এসব যানবাহনের কারণে যানজট সৃষ্টি হয়। এতে জনদুর্ভোগ বাড়ে। ছোট-খাটো দুর্ঘটনাও ঘটে। যা নিয়ে জনমনে ক্ষোভ বাড়ছেই। বিষয়টি নিয়ে রোববার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মাসিক সভায় ব্যাপকভাবে আলোচনা হয়। এক পর্যায়ে সিদ্ধান্ত হয় ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শহরে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হবে। যারপ্রেক্ষিতে আজ পৌর কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসন যৌথভাবে আজ থেকে অভিযান শুরু করেছে। প্রথম দিনেই ৮৮টি রিকশা আটক করা হয়ে ও বেশ কয়কেটি যানবাহনের নামে মামলা করা হয়েছে। এ অভিযান আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। পরে ইঞ্জিনচালিত রিকশার মোটর খুলে তাদের সামনে ভেঙে অটোরিকশা চালকদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

 

এ বিষয়ে যশোর সদর ট্রাফিক পুলিশের টিআই শুভেন্দু কুমার মুন্সি বলেন, পৌরসভা অভিযান চালিয়েছে। ট্রাফিক পুলিশ তাদের অভিযান সফল করতে সর্বাধিক সহযোগিতা করেছে।

শুভেন্দু কুমার মুন্সি বলেন, যশোরের মনিহার চত্বর, খাজুরা স্ট্যান্ড ও মুড়লীতে রাস্তার ওপর যে সমস্ত বাস ও ট্রাকসহ যেসব যানবাহন ছিলো সবগুলো রেকার দিয়ে তুলে নিয়ে অপসারণ করা হয়েছে। এবং ওই গাড়ির বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে। গাড়িগুলো তুলে নিয়ে বিভিন্ন গ্যারেজের ভিতরে রাখা হয়েছে।

এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন ট্রাফিক পুলিশের টিআই শুভেন্দু কুমার মুন্সি।

 

আরো সংবাদ