যান বিমানে আসেন বিমানে-রাস্তার খবর নিবেন কিভাবে ?

পাঠকের নির্ধারিত কলাম থেকে : যশোর সদর ৩ আসন দক্ষিণবংগের অতন্ত গুরুত্ববহ একটি আসন – এই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্যা ব্যবসায়ী এম পি কাজী নাবিল আহম্মেদ তিনি একাধারে বাফুফের সহ সভাপতি এবং একজন ব্যবসায়ী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন পদে থাকার কারনে তিনি যশোর বাসীর দুঃখ দুর্দশা সন্মন্ধে অবগত নন।এই অবগত না হবার কারনে বর্তমান সরকারের সকল উন্নয়ন ভুলন্ঠিত হচ্ছে যশোরবাসী বেশির ভাগ উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বঞ্চিত হচ্ছে একজন এম পির সুযোগ সুবিধা থেকে। বিশিস্ট সাংবাদিক সাজেদ রহমানের ভাষায় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ অযোগ্য এম পিকে এই চার বছর ধরে দেখছেন এই যশোর বাসী বর্তমান এম পি যে অযোগ্যতার প্রমান দিচ্ছেন তার প্রমান আছে ভূরি ভূরি।তিনি মাসের ২৬ দিন থাকেন ঢাকায় যে কয়দিন যশোরে থাকেন তাতে যশোর বাসীর দুর্দশা সন্মন্ধে অবগত হতে পারেন।আবার তিনি যশোর আসেন বিমানে আবার ঢাকায় ফেরত যান বিমানে।যশোর বাসী বলছেন এম পি সাহেব যেহেতু উন্নয়ন করতে পারছেন না সেহেতু তার এম পি হবার প্রয়োজন কি ছিল।যশোরের বিশিস্ট জনদের বক্তব্য এমন যেখানে সারাদেশ উন্নয়নে ভাসছে সেখানে যশোরের রাস্তার যে বেহাল দশা তাতে আর বলবো কি।আজ তিন বছর যশোর থেকে খাজুরা * যশোর থেকে বসুন্দিয়া *যশোর থেকে নাভারন * যশোর থেকে ছুটিপুর * বর্তমান এম পি এই রাস্তাগুলি দিয়ে যাতায়াত করেন নাই রাস্তা গুলীর যে দশা তাতে গুরুর গাড়ী চলাচলের উপযোগিও নয়। এমন বেহাল রাস্তা উন্নয়নের কোন ব্যবস্থা দেখা যাচ্ছে না। যশোর জেলা আওয়ামীলীগের একজন প্রভাবশালী নেতা বলেন প্রধানমন্ত্রী তাকে বানিয়েছেন তাই মেনে নিয়েছি নয়তো তিনি একটি ইউনিয়নের মেম্বার হবার যোগ্যতা রাখেন না যশোর জেলার ছেলে হয়েও অনেক গ্রাম তিনি চেনেন না এটা কি চরম ব্যর্থতা নয় কি?