আজ - মঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি, (শীতকাল), সময় - সকাল ৭:২৮

শের-ই-বাংলা মেডিকেলের ডাস্টবিনে ৩১টি নবজাতকের লাশ

রাত পৌনে ৯টার দিকে পরিচ্ছন্ন কর্মীরা এসব মরদেহ দেখতে পান।

রবিউল ইসলাম, বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের পানির ট্যাংক সংলগ্ন ডাস্টবিন থেকে কমপক্ষে ৩১টি অপরিণত নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। 

আজ সোমবার রাত পৌনে ৯টার দিকে পরিচ্ছন্ন কর্মীরা এসব মরদেহ দেখতে পান। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়। 

কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

এ বিষয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক এসএম বাকির হোসেন জানান, বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালের ময়লার স্তুপ থেকে ৩১টি অপরিণত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ব্যবহারিক কাজে এসব অপরিণত শিশুর (ফিটাস) মরদেহ সংরক্ষণ করার কথা ছিল। পরে তদন্ত করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার মোদাচ্ছের আলী কবির জানান, রাতে পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা হাসপাতালের পশ্চিম পাশে কেন্দ্রীয় পানির ট্যাংকের পাশে থাকা ডাস্টবিনের ময়লা অপসারণ করছিলেন। এ সময় তারা ময়লার ভেতরে বালতি ভরা ২২টি অপরিণত শিশুর মরদেহ দেখতে পান। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান তারা।  

মোদাচ্ছের কবির আরও বলেন, ‘অনেক মায়েদের অপরিণত বা মৃত বাচ্চা জন্মায়, যা অনেক সময় পরিবারের লোকেরা নিয়ে যায়। আবার অনেকে ফেলে যায়। রেখে যাওয়া বাচ্চাগুলো দিয়ে মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের ক্লিনিক্যাল ক্লাস নেওয়া হয়। পরে তা কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মাটি চাপা দেওয়া হয়।’ 

কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ওই স্থানেই মরদেহগুলো মাটি চাপা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মোদাচ্ছের কবির।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান বরিশাল মহানগর পুলিশের (বিএমপি) কোতয়ালি থানা পুলিশের সদস্যরা। তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন বলে জানিয়েছেন কোতয়ালি থানার ওসি নুরুল ইসলাম।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত