আজ - সোমবার, ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি, (বর্ষাকাল), সময় - সকাল ৬:৩৬

ষড়যন্ত্রের রোষানলে শাহারুল ইসলাম সাময়িক বরখাস্ত :: ক্ষোভে ফুঁসছে নেতা কর্মীরা!

যশোর প্রতিনিধি: যশোর সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এই সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারির পর বৃহস্পতিবার তা কার্যকর করা হয়েছে। শাহারুল যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। বৃহস্পতিবার যশোর জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার শাখার সহকারী সচিবের স্বাক্ষরের মাধ্যমে প্রজ্ঞাপনটি কার্যকর হয়। মন্ত্রণালয় থেকে জারি হওয়া প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম একটি হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রধান আসামি হওয়ায় তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক অনুরোধ জানান। উল্লিখিত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিচারাধীন মামলার অভিযোগপত্র আদালত কর্তৃক গৃহিত হওয়ায় তার কর্তৃক ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচিন নয় মর্মে সরকার মনে করে।’
যশোর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে আরবপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি বৃহস্পতিবার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হয়েছে। যার অনুলিপি বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যান ছাড়াও সংশ্লিষ্ট ইউপি সচিবকেও দেওয়া হয়েছে। স্মারক নম্বর ০৫.৪৪.৪১০০.১৩.০০৭.০০১.১৮.১৪(৩)। তবে  হত্যা মামলায় তাকে ফাঁসানো হয়েছে দাবি করছেন নেতা কর্মীরা, শাহারুল ইসলামের জনপ্রিয়তায় ক্ষুব্ধ হয়ে একটি মহলের দীর্ঘ দিনের ষড়যন্ত্রের প্রচেষ্টা সফল হয়েছে।তবে ষড়যন্ত্র বেশি দিন স্থায়ী হতে দিবেননা এবং যে কোন সময় আন্দোলনের ডাক দিতে পারেন তারা এমন হুশিয়ারি দিয়েছেন সদর উপজেলার নেতা কর্মী ও আরবপুর বাসীরা। ক্ষমতার অপব্যবহার করে এই ষড়যন্ত্র করা হয়েছে দাবি সদর উপজেলা আ’লীগের। শাহারুল ইসলামের শূণ্যতার মেয়াদ দীর্ঘ হলে উন্নয়নে ধ্বস নামবে।  এদিকে মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মাহাবুবুর রহমান চেয়ারম্যান শাহারুলকে বরখাস্তের আদেশে গত ২১ ডিসেম্বর স্বাক্ষর করেন।যার স্মারক নম্বর ৪৬.০০.৪১০০.০১৭.২৭.০০১.১৫.১০০৯।স্থানীয় সরকার বিভাগ, যশোরের উপপরিচালক মো. মাজেদুর রহমান খান উল্লিখিত তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফ-উজ-জামান জানিয়েছেন, এক নম্বর প্যানেল মেয়রকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে বলা হয়েছে।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত