আজ - শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি, (হেমন্তকাল), সময় - সকাল ৮:৪২

সাংবাদিক সিকান্দার ২ দিনের রিমান্ডে।

মুনতাসির মামুন, ঢাকা থেকে: অফিস আদালতে যৌন হয়রানির বহু ঘটনাও সামনে আসছিল। বেশকিছু অভিযোগও পাওয়া যাচ্ছিল অনেক দিন ধরেই। তবে এই প্রথম এ ধরনের কোনো ঘটনায় পদক্ষেপ নিলো প্রশাসন। সহকর্মীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে করা একটি মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল একুশে টিভির (ইটিভি) চিফ রিপোর্টার এম এম সেকান্দার। গত রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে র্যাব-২ এর একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে।
ভুক্তভোগী নারী সংবাদ পাঠিকা দাবি করেছেন, মামলা করার আগে গত ২৮ জানুয়ারি তিনি ইটিভি কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। কিন্তু সেকান্দারের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকি তার অভিযোগ কেউ গ্রাহ্যই করেনি।

ওই নারী আরও জানান, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে রিপোর্টিং কোর্স করার সময় সেকান্দারের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেখানে প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করতেন সেকান্দার। তার মাধ্যমেই ইটিভিতে চাকরি পান ওই নারী। চাকরি পাওয়ার পর থেকেই সেকান্দার তাকে বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানি করেছেন। কোনো কারণ ছাড়াই তাকে অনেক রাত পর্যন্ত অফিসে বসিয়ে রেখেছেন। গাড়িতে করে বাসায় পৌঁছে দেয়ার নাম করেও তাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হতো। এসব কাজে চ্যানেলটির আরো কয়েকজন সেকান্দারকে সহায়তা করতো বলেও দাবি করেছেন তিনি।

আন্দোলনরত ইটিভি পরিবার।

গতকাল সোমবার সেকান্দারকে আদালতে হাজির করা হলে মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে ২ দিনের রিমান্ড দেন।

এর আগেও দেশের মিডিয়া হাউসগুলোতে যৌন হয়রানির কথা শোনা গেছে। কিন্তু সামাজিকভাবে সম্মানহানির আশংকায় এবং প্রশাসন কোনো কঠোর ব্যবস্থা না নেয়ায় এসব নিয়ে খুব বেশি সোচ্চার হতে দেখা যায়নি ভুক্তভোগীদের। কিন্তু এবার দেশের প্রথম সারির একটি টেলিভিশন চ্যানেলের চিফ রিপোর্টার যৌন হয়রানির অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ায় অনেকেই হয়তো সাহসী হয়ে মুখ খুলতে শুরু করবেন।

আরো সংবাদ