আজ - মঙ্গলবার, ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি, (শীতকাল), সময় - সকাল ৬:৪০

সেই স্ত্রী কি থাকবেন স্বামীর বিদায় অনুষ্ঠানে?

পাঠকের কলাম: আসুন এবার আমরা এই আলো ঝলমলে যুগলের সাদাকালো জীবনের গল্পটা শুনি!

দুজনেই তারকা ডাক্তার। স্বামী একটা বড় কোচিংয়ের ব্যস্ত পরিচালক। স্ত্রী ইউএসএমএলই পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত। আরও আগে থেকেই তাদের পরিচয় থাকলেও বিয়ে ২০১৬ তে। আলো ঝিলমিল পরিবেশ দেখেই বোঝা যাচ্ছে বিয়ের প্রোগ্রামে ভালোই খরচ করা হয়েছে। উৎসাহ-উদ্দীপনা আনন্দ হিল্লোলের ঘাটতি ছিল না এ আয়োজনে।

অথচ বিয়ের তারিখ ঠিক হয়ে যাওয়ার সময়েও তিনি জানতেন তার হবু স্ত্রী একজন চরিত্রহীনা। একাধিক পুরুষের সঙ্গে তার অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক আছে। সেটা এক দুই দিনের না বছরের পর বছরের।

তবু তিনি তার শরীরী সৌন্দর্যকে অস্বীকার করতে পারলেন না। সবাইকে দাওয়াত দেয়া হয়ে গেছে বিয়ে ভাঙলে তারা কী ভাববে সেটা ভেবে বিয়েটা ভেঙেও দিলেন না। স্ত্রীর চরিত্রের চেয়ে, সাংসারিক শান্তির চেয়ে ঠুনকো সামাজিক মান-মর্যাদাকেই গুরুত্ব দিলেন বেশি।

ফলাফল? বিয়ের পরেও চরিত্রহীনা স্ত্রী একাধিক পুরুষের সঙ্গে রাত কাটিয়েছে সমানে। চোখের সামনে দোজখের আগুনে পুড়েছে সংসার। সেই সর্বগ্রাসী আগুনেই আজ আত্মাহুতি দিলেন ডাক্তার আকাশ। অনেক কিছুই বলা যায়। তবু আজ বলতে ইচ্ছে করছে না।

শুধু এটুকুই বলি আল্লাহ তাআলা আমাদের কিছু সিদ্ধান্ত নেয়ার সুযোগ দেন। নিজের ভালোমন্দ বেছে নেয়ার ইখতিয়ার দেন ঠিকই। অদ্ভুত ইউটোপিয়ায় ভুগে যদি আমরা সে সুযোগটুকু নষ্ট করে ফেলি বা বাস্তবতাকে অস্বীকার করে দুনিয়াবি মোহে ডুবে থাকি ক্রমশ সে ফল আমাদেরকে ভুগতে হবেই। কিচ্ছু করার থাকবে না তখন।

যে আলোকজ্জ্বল ফটোশুট বিয়ের সময় হয়েছিল, কিউট কাপল হিসেবে এত দিন যে স্তুতিবাক্য তারা শুনেছেন সবার কাছ থেকে; বিদায়টা কি ততোটাই আনন্দের হবে? এতটা জৌলুস নিয়ে কি স্রষ্টার সামনে দাঁড়াতে পারবেন তিনি ?

প্রিয়তমা সেই স্ত্রী কি থাকবেন স্বামীর বিদায় অনুষ্ঠানে?

“ভালো থেক আমার ভালবাসা তোমার প্রেমিকদের নিয়ে”

পরকীয়ায় জড়িত স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক তরুণ চিকিৎসক আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনা ঘটে। আত্মহত্যাকারী চিকিৎসকের নাম মোস্তফা মোরশেদ আকাশ। তিনি ওই হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আলাউদ্দীন তালুকদার বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে মহানগরীর চান্দগাঁও আবাসিক বি-ব্লকের দুই নম্বর সড়কের ২০ নম্বর বাসা থেকে আকাশকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার ভাই নেওয়াজ মোরশেদ। হাসপাতালে আনার পরেই জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে জানান।

চিকিৎসকদের বরাদ দিয়ে আলাউদ্দীন তালুকদার আরও বলেন, শরীরে ইনজেকশনের মাধ্যমে অতিরিক্ত ইনসুলিন পুশ করে আকাশ আত্মহত্যা করেছেন। তার শরীরে আঘাতের কোনও চিহ্ন নাই।

এর আগে ডা. আকাশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে স্ট্যাটাস, ছবি ও ভিডিও দিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির ঘটনাবলি তুলে ধরেন। তার সর্বশেষ স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন-‘ভালো থেক আমার ভালবাসা তোমার প্রেমিকদের নিয়ে।’

জানা গেছে ডা: মোস্তফা মোরশেদ আকাশের স্ত্রী আমেরিকা প্রবাসী।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত