আজ - রবিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি, (গ্রীষ্মকাল), সময় - সন্ধ্যা ৬:০৬

স্বামী স্ত্রী মিলে হত্যা অতঃপর ইজিবাইক ছিনতায়।

 যশোরে অভয়নগর থেকে উদ্ধার হওয়া ঝিকরগাছার গদখালি এলাকার রাশেদ উদ্দিন (২৫) হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত মোট চারজনকে আটক করেছে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই), জেলা ডিবি পুলিশ ও র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের সদস্যরা আলাদাভাবে অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করে। র‌্যাব সদস্যরা ছিনতাই হওয়া ইজিবাইকটি উদ্ধার করেছে। ইজিবাইক ছিনতাই করে নেয়ার জন্য রাশেদকে হত্যা করা হয় বলে আটক তিনজন আদালতে স্বীকার করেছে।

পিবিআই এর হাতে আটক হয়েছে, বাঘারপাড়া উপজেলার বারভাগ গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিন মোল্লার ছেলে মেহেদী হাসান মিলন (২৩) তার স্ত্রী ঝিকরগাছার পারবাজার এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে জান্নাত আক্তার আয়েশা (২২)। র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছে মাগুরার শালিখা উপজেলার একিন মোল্লার ছেলে বেল্লাল হোসেন (৪২) এবং ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয়েছে অভয়নগর উপজেলার কোটা গ্রামের কলিম বিশ্বাসের ছেলে রিমন বিশ্বাস বাবু (২৩)।

পিবিআই জানিয়েছে, আসামিরা সংঘবদ্ধ ইজিবাইক ছিনতাই চক্রের সদস্য। গত ২ মার্চ আসামি রিমন বিশ্বাস নিহত রাশেদের ইজিবাইকটি ভাড়া করে দেয় মেহেদী হাসান মিলনকে। ওইদিন বিকেরে মিলন ও তার স্ত্রী আয়েশাকে নিয়ে প্রথমে মণিরামপুরের ঝাঁপা বাঁওড়ে যায়। সেখানে ভাসমান ব্রিজ দেখে তারা অভয়নগরের দিকে যায়। ধোপাদী গ্রামের উলুর বটতলায় পৌছালে মিলন তার কোমড় থেকে বেল্ট খুলে আচমকা রাশেদের গালায় ফাঁস দেয়। আর আয়েশা দুই পান ধরে রাখে। মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর তারা লাশ আজিজুর রহমানের মাছের ঘেরের পানির মধ্যে ফেলে রেখে যায়। এরপর রাজারহাটে নিয়ে এসে মিলন তার বন্ধুর কাছে ইজিবাইকটি বিক্রি করে দেয়। পরে তারা ঝিকরগাছার ভাড়াবাড়িতে চলে যায়। পিবিআই হত্যাকান্ড তদন্ত করে তাদের সম্পৃক্ততা পায়। গত শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে আয়েশাকে তার ভাড়াবাড়ি থেকে এবং মিলনকে শহরের মুড়লী মোড় থেকে আটক করে পিবিআই। আর ডিবি পুলিশ রাত পৌনে ১১টার দিকে রিমন বিশ্বাস বাবুকে বসুন্দিয়া থেকে আটক করে। আটক তিনজন আদালতে হত্যাকান্ড বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

আরো সংবাদ