হ্যান্ডকাফসহ আসামি ছিনতাই :: ৪ ঘন্টা পর পুনরায় গ্রেফতার

মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুরে হ্যান্ডকাফ পরা গ্রেফতারকৃত আসামি ছিনতাইয়ের ৪ ঘন্টা পর ওই আসামিসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এএসআই শরীফুল ইসলাম ও কনস্টেবল নির্মনী ঘোষ আহত  হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান, গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে থানার এএস আই শরীফুল ইসলাম ও কনস্টেবল নির্মনী ঘোষ উপজেলার ভীমপুর ইউনিয়নের হর্ষি গ্রামের আব্দুল গফুরের পুত্র প্রতারণা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ফারুক হোসেন (৪৫) কে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে হ্যান্ডকাফ লাগিয়ে থানায় আনার সময় ওই গ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রশীদ এর নেতৃত্বে ১০/১৫ জনের নারী-পুরুষের একটি দল পুলিশের উপর চড়াও হয়।

একপর্যায়ে পুলিশকে মারপিট করে তাদের কাছ থেকে ওই আসামিকে হ্যান্ডকাফ পরা অবস্থায় ছিনতাই করে। পরে এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে মহাদেবপুর ও নওগাঁ সদর মডেল থানাসহ নওহাটা ফাঁড়ি পুলিশ হর্ষি ও পাটনা গ্রাম পুলিশ ঘিরে ফেলে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৪ ঘন্টা পর ওই হ্যান্ডকাফ পরা আসামি ফারুককে পুনরায় বিলের ভেতর থেকে গ্রেফতার করে।

ফারুককে ছিনতাই, পুলিশ অফিসারদের মারপিট করে আহত করার অভিযোগে ওই গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দীনের পুত্র ও স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রশীদ, আসামি ফারুকের স্ত্রী ফারজানা খাতুন, সহিদুলের স্ত্রী হালিমা বেগম ও নজরুল ইসলামের পুত্র রেজাউল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আহত দুই পুলিশ সদস্য এএসআই শরীফুল ইসলাম ও কনস্টেবল নির্মনী ঘোষকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে মহাদেবপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশি অভিযান এখনও অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি মিজানুর রহমান।