আজ - রবিবার, ৯ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, (গ্রীষ্মকাল), সময় - সকাল ১১:২৯

নরেন্দ্রপুরে ধান কাটতে কৃষকের পাশে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ

খানজাহান আলী 24/7 নিউজ : জমিজুড়ে পাকা ধান। উঠবে ফসল। ভরবে গোলা। খুশি আর আনন্দে ভরে উঠবে মন। কিন্তু যশোর সদর উপজেলাধীন নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের কৃষক কাশেম মোল্যার পাকা ধান দেখে কৃষকের মাথায় দুশ্চিন্তা। এমন সময় ঐ কৃষকের পাশে দাড়িয়েছে নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।

আজ ২৯ এপ্রিল সকাল থেকেই কৃষক কাশেম মোল্যার জমির ধান কেটে-বেধে দেন তারা। কৃষকের মুখে হাসি ফোটাতে পেরে খুশি নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

মূলত আওয়ামীলীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে সারাদেশে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিনা পারিশ্রমিকে কৃষকের মাঠের পাকা ধান কাটছে। ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে ইতিমধ্যেই যশোর জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা কৃষকের পাশে থেকে পাকা ধান ঘরে তুলতে সাহায্য করছে। যশোর জেলা ছাত্রলীগের নির্দেশনায় ১৪ নং নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ একজন কৃষকের ধান কেটেছে।

লকডাউনে মৌসুমের পাকা ধান ঘরে তোলা নিয়ে কৃষকরা ভুগছেন শ্রমিক সংকটে। প্রতিবছর বিভিন্ন এলাকা থেকে শ্রমিকরা এসে ধান কেটে দিয়ে গেলেও গত দুই বছর করোনায় দূরের জেলা বা উপজেলা থেকে শ্রমিক আসছে না, ফলে পাকা ধান ঘরে তুলতে নানা জটীলতার মুখোমুখি হচ্ছে কৃষক।

কৃষক কাশেম মোল্যা বলেন, লকডাউন থাকায় জেলার বাইরের শ্রমিক প্রয়োজনের তুলনায় কম এসেছে। এই কারণে অতিরিক্ত টাকায়ও শ্রমিক মিলছিল না। এদিকে ধান পেকে খেতেই ঝরে পড়ার উপক্রম হচ্ছিল। এমন সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমার ধান কেটে দিয়েছে।

এর আগে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রলীগের প্রতি ইউনিটের নেতাকর্মীকে কৃষকের পাশে থেকে ধান কাটাসহ সর্বাত্মক সহযোগিতার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবির পিয়াস ও সাধারণ সম্পাদক তানজীব নওশাদ পল্লব সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে যশোর জেলাধীন সকল উপজেলা/পৌর/ইউনিয়ন/ওয়ার্ড ছাত্রলীগের নেতাকর্মীকে কৃষকের পাশে থেকে ধান কেটে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। যশোর জেলা ছাত্রলীগের নির্দেশে নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহীন আলম ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম কিরনের নেতৃত্বে কৃষকের ধান কেটেছে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

তারা বলেন, “ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বক্ষেত্রেই কৃষকের পাশে দাঁড়াতে ছাত্রলীগকে নির্দেশ দিয়েছেন। সেই নির্দেশ বাস্তবায়নে আমরা যশোর জেলা ও যশোর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের আহবানে সাড়া দিয়ে অসহায় কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছি। মূলত ধান কাটার প্রতি মৌসুমেই বিভিন্ন উপজেলা থেকে শ্রমিকরা নরেন্দ্রপুরে ধান কাটতে আসেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঘোষিত লকডাউনে অন্য এলাকার শ্রমিক এখানে আসতে পারেননি। এদিকে এই কৃষকের জমির পাকা ধান নিয়ে কাটতে না পেরে বিপাকে পড়েন। এই কৃষকের অসহায়ত্বের কথা শুনে নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে তার ধান কেটে দিয়েছি। এ সংকটকালে প্রয়োজনে অন্যদের ধানও কেটে ঘরে তুলে দেবে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

এই ধান কাটায় অংশ নেওয়াদের মধ্যে রয়েছেন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতি সিদ্ধার্ত বিশ্বাস, বি এম মোর্তজা, সোহাগ সাহা, ইমরান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রিজভী রহমান বিশাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোল্যা তরিকুল, মিরাজ হোসেন, প্রচার সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন সানি, কাদের বরকন্দাজ, শাহারিয়ার ইসলাম হৃদয়, ইমন, বায়জিদ প্রমুখ।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত