আজ - শনিবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি, (শরৎকাল), সময় - রাত ১:৩৯

ঢাকায় স্বস্তির বৃষ্টি, গভীর নিম্নচাপ রূপ নিচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাবে’

ভ্যাপসা গরমে জনজীবনে অস্বস্তি নামার পর এলো স্বস্তির বৃষ্টি। শনিবার দুপুরে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রশান্তির বৃষ্টির দেখা মিলেছে। বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা আরও বাড়বে বলে এরই মধ্যে পূর্বাভাস দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অন্যদিকে গভীর নিম্নচাপটি শনিবারের (২৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যেই ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ রূপ নেবে। এর গতিপথ ভারতের স্থলভাগের দিকে। এটি আগামীকাল রোববার সন্ধ্যা নাগাদ ভারতের উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডব্লিউএমও) অধীন জাতিসংঘের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সাগর তীরের ১৩টি দেশের (বাংলাদেশ, মিয়ানমার, ভারত, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, থাইল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ওমান, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইরান, সৌদি আরব ও ইয়েমেন) আবহাওয়াবিদদের সংস্থা এস্কেপ ঘূর্ণিঝড়ের নাম দিয়ে থাকে। ‘গুলাব’ নামটি পাকিস্তানের দেওয়া।

শনিবার সকাল থেকে ঢাকার আকাশে ছিল রোদের ঝিলিক। বৃষ্টির কোনো পূর্ব লক্ষণই ছিল না। তবে দুপুরের আগেই ভারি হয়ে আসে নগরীর আকাশ। বাড়ে মেঘের আনাগোনা। এরপর দুপুর ২টার দিকে শুরু হওয়া বৃষ্টি ক্রমে ভারি হয়। গত কয়েক দিনের নাজেহাল গরমের পর এমন স্বস্তির বৃষ্টিতে অনেককেই রাস্তায়, বাসার ছাদে কিংবা খোলা জায়গায় দাঁড়িয়ে গা ভেজাতে দেখা গেছে। তবে দুপুরটাকে ভিজিয়ে নামা বৃষ্টিতে কর্মজীবী মানুষদের কিছুটা ভোগান্তিও পোহাতে হয়েছে। টানা ঘণ্টাখানেক বৃষ্টিতে রাজধানীর বেশিরভাগ সড়কেই পানি জমতে দেখা গেছে। এরই মধ্যে কাকভেজা হয়ে, পানি মাড়িয়ে গন্তব্যে ছুটেছেন নগরবাসী।

দুপুরে ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর সবশেষ বুলেটিনে জানিয়েছে, আগামী ৬ ঘণ্টার মধ্যে গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে। এরপর রোববার সন্ধ্যা নাগাদ ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের বিশাখাপত্তনম ও গোপালপুরের মধ্য দিয়ে উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ ও দক্ষিণ উড়িষ্যা উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

আরো সংবাদ