প্রতিবেশীর ঘরে মিলল শিশুর বস্তাবন্দি লাশ

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে তিন বছর বয়সের হোসাইন সাফি নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ঝগড়ারচর গ্রামে প্রতিবেশী আজিজুল হকের বসতঘর থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় রাতেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অপু (১৫) নামে এক কিশোরকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। নিহত হোসাইন সাফি ওই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে।

রৌমারী থানার ওসি মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ আজিজুল হকের বসতঘর থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে। এ ঘটনায় রাতেই অপু (১৫) নামে এক কিশোরকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। আটক কিশোরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

নিহত শিশুর চাচা জাহাঙ্গীর আলম জানান, শুক্রবার বিকেলে শিশু সাফি নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে কোথাও পাওয়া না গেলে রাত ৯টার দিকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পরে রাত ১১টার দিকে বাড়ির পাশে অপু নামের এক কিশোরের নানা বাড়ি থেকে শিশুটির বস্তাবিন্দ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তিনি আরও জানান, কিছু দিন ধরে অপু শিশুটির বাড়িতে প্রায়সময়ই আসা-যাওয়া করতো এবং শিশুটিকে মোবাইল গেমস খেলার প্রলোভন দেখাতো। ঘটনার দিন অপু শিশুটিকে গেমস খেলার কথা বলে নিয়ে যায়।