আজ - বুধবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা রমজান, ১৪৪২ হিজরি, (গ্রীষ্মকাল), সময় - সকাল ৮:১৮

রান্নাঘরে মিলল বৃদ্ধার গলাকাটা মরদেহ

ঈশ্বরদীতে আনোয়ারা বেগম (৬৫) নামের এক বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার রাতে শহরের স্কুলপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আনোয়ারা বেগম ওই এলাকার হাবিবুর রহমানের স্ত্রী।

নিহতের ছেলে আনিস জানান, চাকরি ও ব্যবসার কারণে তারা পাঁচ ভাইবোন ঢাকাতে থাকেন। ঈশ্বরদীর বাড়িতে তাদের অসুস্থ বাবা ও মা থাকতেন। বুধবার দুপুরের পর থেকে তার মাকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছিল না। বিকেল পর্যন্ত অনেকবার চেষ্টা করার পর মাকে ফোনে না পেয়ে তার এক বন্ধুকে বাড়িতে খোঁজ নিতে বলেন। সেই বন্ধু ওই বাড়িতে গিয়ে রান্নাঘরে তার মায়ের গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তার সেই বন্ধুর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে বাড়িতে জমা হয়। তবে কে বা কারা কি কারণে তার মাকে হত্যা করেছে তা তিনি জানাতে পারেননি।

আনিস আরো জানান, তার বাবা হাবিবুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে প্যারালাইসিস হয়ে শয্যাশায়ী হয়ে আছেন। তিনি একা নড়াচড়া করতে  পারেন না।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চুরির উদ্দেশে গিয়ে ওই নারীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। চোররা হয়তো আগে থেকেই এই বাড়িতে বৃদ্ধ-বৃদ্ধার একা থাকার কথা জানতো।

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থলে সিদ্ধ ডিমের খোসা পড়ে ছিল। পাশে রুটি বানানো ছিল। আলামত দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রান্নাঘরেই তাকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা চুরি করে পালিয়ে গেছে।

ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। লাশ উদ্ধার করে বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনা তদন্তে পুলিশ বুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কাজ করছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় অজ্ঞাতানামা কয়েকজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আরো সংবাদ
যশোর জেলা
ফেসবুক পেজ
সর্বাধিক পঠিত